অসমিয়া ভাষায় কথা বলতে না পারায় এনআরসি কেন্দ্রে হয়রানির শিকার করিমগঞ্জের এক বাসিন্দা

গুয়াহাটি

Published Time

June 20, 2019, 10:51 am

Updated Time

July 4, 2022, 5:09 pm
one-man-harass-in-nrc-centre-because-of-dont-know-assamese-language
অসমিয়া ভাষায় কথা বলতে না পারায় এনআরসি সেবাকেন্দ্রে সরকারি কর্মকর্তাদের দ্বারা এক ব্যক্তিকে হয়রানির শিকার হতে হয়েছে। ইতিমধ্যে সেই ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে। জানা গিয়েছে, ওই ব্যক্তি করিমগঞ্জ জেলার বদরপুরের বাসিন্দা। গত ১৭ জুন মুন্না গোয়ালা নামের ওই ব্যক্তি এনআরসি ভেরিফিকেশনের কাজে তাঁর পরিবারের সঙ্গে হোজাই’র এনআরসি কেন্দ্রে যান। এনআরসি ভেরিফিকেশন প্রক্রিয়া চলাকালীন ওই কেন্দ্রের কর্মকর্তারা মুন্না গোয়ালাকে অসমিয়া ভাষায় কথা বলতে বলেন। ৩ মিনিট ৩০ সেকেণ্ডের ওই ভিডিওতে দেখা গিয়েছে যে, এনআরসি কর্মকর্তারা মুন্না গোয়ালাকে অসমিয়া ভাষায় কথার বলার জন্য বললে, তখন তিনি জানান যে, তাঁর মাতৃভাষা হিন্দি, বাংলা ও ইংরাজি ভাষা জানলেও অসমিয়া ভাষা বলতে জানেন না। এছাড়াও তিনি বলেন যে, স্কুলে পড়ার সময়ও অসমিয়া ভাষা শেখার পরিসর ছিল না। হিন্দিভাষী মুন্না গোয়ালা এনআরসি কর্মকর্তাদের কাছে জানতে চান যে, অসমিয়া ভাষা জানাটা কি বাধ্যতামূলক? এই কথার উত্তরে কর্মকর্তারা জবাব দেন, যে অসমে থাকলে অসমিয়া ভাষা জানা বাধ্যতামূলক। ভিডিওতে আরও দেখা গিয়েছে, যে বেশ সময় ধরেই সরকারি কর্মকর্তারা মুন্না গোয়ালাকে অসমিয়া ভাষা নিয়ে হয়রান করেছেন। বারংবার যুক্তি সহকারে তিনি অসমিয়া ভাষা জানেন না এবং বাংলা ভাষার পরিবেশে বেড়ে ওঠা নিয়েও কথা বলতে শোনা গিয়েছে ভাইরাল ভিডিওতে।


Recent News

Available at

© 2019 - Maintained by EZEN Software & Technology Pvt. Ltd