পাকিস্তানকে কক্ষনো ক্ষমা নয়! ৭১-এর মুক্তিযুদ্ধের প্রসঙ্গ টেনে পাক রাষ্ট্রদূতকে কড়া বার্তা শেখ হাসিনার

নিউজ ডেস্ক
ঢাকা

Published Time

December 5, 2020, 9:51 am

Updated Time

December 5, 2020, 9:51 am
bangladesh-will-never-forgive-pakistan
ফাইল চিত্র

একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তানের জঘন্য ও পৈশাচিক ভূমিকাকে কোনদিন ক্ষমা করবে না বাংলাদেশ। ক্ষমার অযোগ্য এক ইতিহাস! 

কড়া ভাষায় ঢাকায় নিযুক্ত পাক হাইকমিশনারকে এ কথা স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিলেন 

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা (Sheikh Hasina)। 

বৃহস্পতিবার রাজধানী ঢাকায় নিযুক্ত পাকিস্তানি হাইকমিশনার ইমরান আহমেদ সিদ্দিকি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন ঢাকায় সরকারি বাসভবনে।

সেখানেই আহমেদ সিদ্দিকির কাছে স্পষ্ট ভাষায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী। সেই বর্বরতাকে বাংলাদেশ কোনদিন ক্ষমা করবে না।

প্রধানমন্ত্রীর কথায়, ‘‘১৯৭১ সালে পাকিস্তান বাংলাদেশের মানুষের প্রতি যে নৃশংসতা চালিয়েছে, তা ভোলার নয় এবং এই ব্যথা, 

যন্ত্রণা থাকবে চিরদিন। বাংলাদেশ তা কখনও ভুলতে এবং ক্ষমা করতে পারবে না।’’ 

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, ‘সিক্রেট ডকুমেন্টস অব ইন্টেলিজেনস ব্রাঞ্চ অন ফাদার অব দ্য নেশন’ – বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের গ্রন্থে ১৯৪৮-৭১ সালে ঘটে যাওয়া অনেক ঐতিহাসিক ঘটনা জানতে পারবে জাতি। 

উল্লেখযোগ্য যে, বঙ্গবন্ধু লেখা ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’র উর্দু সংস্করণ পাকিস্তানে (Pakistan) অন্যতম বিক্রিত একটি বই। অন্যান্য দেশে তো বটেই, পাকিস্তানে পর্যন্ত এই বই জনপ্রিয়ও। 

এ বিষয়ে নাকি শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।আর সেই শুভেচ্ছাবার্তা পৌঁছে দিতেই রাষ্ট্রদূত সিদ্দিকি গিয়েছিলেন হাসিনার সঙ্গে দেখা করতে। 

পাকিস্তানের নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূতকে দেওয়া প্রধানমন্ত্রী হাসিনার বক্তব্যকে ইতিবাচক দৃষ্টিতে দেখছেন দেশের কূটনীতিক ও বিশিষ্ট নাগরিকরা। 

কারণ হাসিনার কড়া বার্তায় জাতি অপশক্তিকে অপশক্তি হিসেবেই দেখবে। 

শোষণের চরম সীমায় পৌঁছে নারকীয় কায়দায় ১৯৭১ সালে পূর্ব পাকিস্তানের মাটি দখল করতে, নিরস্ত্র, অসহায় বাঙালির ওপর নৃশংস, নির্মম অত্যাচার চালিয়েছিল, যে অত্যাচারের বর্ণনা দিলেও শেষ হবে না। বর্বর পাকিস্তানের শাসকরা। এমন নিপীড়ন, অত্যাচার বিশ্বে নজিরবিহীন।

রক্ত ঝরিয়ে স্বাধীন হয় বাংলাদেশ! এবং সেখানে ভারতের অবদান উল্লেখযোগ্য! আজ ভারতের ত্যাগের ফসল বাংলাদেশের স্বাধীনতা।

সেই পরাধীন ভূমি স্বাধীনতার ৫০ বছরে পা রাখতে চলেছে। উন্নয়ন, আর্থ-সামাজিক বাস্তবতা, জ্ঞান-বিজ্ঞান এবং স্বনির্ভরতার নানা সূচকে বাংলাদেশ আজ অতিক্রম করেছে পাকিস্তানকে।

পাকিস্তানের নারকীয় অত্যাচার বাংলাদেশ এখনও ভোলেনি উল্লেখ করে শেখ হাসিনা দূতকে ৩ ডিসেম্বর জানান, পাকিস্তানকে কখনো ক্ষমা করা সম্ভব নয়।

শেখ হাসিনার এই দৃঢ় মন্তব্যের পর পরই বিভিন্ন মহলে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা চলছে। কূটনৈতিক মহল এবং সুশীল সমাজ মনে করছে,

হাসিনার এ বক্তব্যে মাথা না নোয়ানোর অনুপ্রেরণা পাবে জাতি।

সাবেক রাষ্ট্রদূত ড. ওয়ালিউর রহমান বলেন, প্রধানমন্ত্রী তাঁর প্রতি সম্মান দেখিয়েছেন। সম্মান দেখিয়ে বলেছেন ‘আপনি আসছেন, আপনি আমাদের অতিথি। কিন্তু আপনারা ভুল করেছেন। বাঙালিরা কখনো ভুলবে না এই নৃশংসতা।’



Recent News

Available at

© 2019 - Maintained by EZEN Software & Technology Pvt. Ltd