ভারতের সাত রাজ্যে নিশ্চিত হয়েছে বার্ড ফ্লু-র ভয়াবহ সংক্রমণ

নিউজ ডেস্ক
কলকাতা

Published Time

January 10, 2021, 6:07 pm

Updated Time

January 10, 2021, 6:07 pm
outbreaks-of-bird-flu-have-been-confirmed-in-seven-indian-states
বার্ড ফ্লু

ভারতের সাত রাজ্যে বার্ড ফ্লুর সংক্রমণ ধরা পড়াটা নিশ্চিত হয়েছে বলে শনিবার সরকার জানায়।

কেরালা, রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, হিমাচল প্রদেশ, হরিয়ানা, গুজরাট এবং উত্তর প্রদেশে বার্ড ফ্লু সংক্রমণ ধরা পড়াটা নিশ্চিত হয়েছে বলে সরকারের তরফ থেকে উল্লেখ করা হয়েছে।

দেশে আরো ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। ছড়িয়ে পড়তে পারে এই আশঙ্কায় কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে প্রত্যেক রাজ্যগুলোকে সতর্কতা দেয়া হয়েছে। 

কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, দিল্লি, ছত্তিশগড় এবং মহারাষ্ট্রে পাখির মৃত্যুর খবর পাওয়া গেলেও সেগুলো বার্ড ফ্লু-তেই মারা গিয়েছে কি না, সেই বিষয়টি এখনো স্পষ্ট নয়।সেগুলোর নমুনা পরীক্ষা করার জন্যে পাঠানো হয়েছে।

কেন্দ্রীয় পশুপালন এবং দুগ্ধজাত পণ্য এবং মৎস্য মন্ত্রণালয়ের তরফে জানানো হয়েছে, এখনো পর্যন্ত ভারতের সাত রাজ্যে বার্ড ফ্লু নিশ্চিত করা গিয়েছে। সতর্কতা হিসেবে ইতিমধ্যে প্রত্যেক রাজ্যকে সাবধান করে দেওয়া হয়েছে, সংক্রমণ যেন কোনভাবেই ছড়াতে না পারে।

পরিভ্রমী পাখি আসা বিল ছাড়াও পাখির বাজার, চিড়িয়াখানা, ফার্ম ইত্যাদির দিকে তীক্ষ্ণ পর্যবেক্ষণ অব্যাহত রাখা হয়েছে। সরকারের তরফ থেকে উল্লেখ করা হয়।

অন্যদিকে, পাখির বাজার, ফার্ম ইত্যাদির জৈব সুরক্ষা নিশ্চিত করার ক্ষেত্রেও গুরুত্ব আরোপ করা হয়েছে। 

কেরালায় বহু সংখ্যক হাঁসের বার্ড ফ্লুতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর পর রাজ্যে বার্ড ফ্লুকে রাজ্যিক বিপর্যয় হিসেবে ঘোষণা করা হয়। এদিকে, কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে প্রত্যেক রাজ্যকে বার্ড ফ্লু সংক্রমণ নিয়ে সতর্ক হয়ে থাকার জন্যে আহ্বান জানানোর পাশাপাশি প্রতিবেদন দাখিল করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

শনিবার ভারতজুড়ে ১২০০ পাখি প্রাণ হারিয়েছে। জানিয়েছে আনন্দবাজার পত্রিকা। 

মধ্যপ্রদেশের ১৩টি জেলায় বার্ড ফ্লুর সংক্রমণ নিশ্চিত হয়েছে। 

তবে রাজ্যটির ২৭টি জেলায় প্রায় ১১০০ কাক এবং পাখিকে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে। করোনার সঙ্গে এখনো মানুষ যুদ্ধ করছে। এর মধ্যেই দোসর হয়ে এসেছে বার্ড ফ্লু। এবার যেন একটু বেশিই ছড়িয়ে পড়েছে। 

মহারাষ্ট্রের মুম্বাই, থানে, ধাপোলি ও বীড এলাকায় মৃত অবস্থায় পড়ে থাকা কিছু কাকের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে।

ভারতের পশুপালন ও দুগ্ধজাত পণ্য বিভাগ সম্পূর্ণ পরিস্থিতির ওপর নজর রাখার জন্য সব রাজ্যের প্রধান সচিব ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলের প্রধান প্রশাসকদের চিঠি দিয়েছে।

শুধু তাই নয়, পাখি থেকে মানুষের শরীরে যেন সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তে না পারে সেদিকে কড়া নজর রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। নয়তো মহামারির মধ্যে বিপদ বাড়বে ভয়ানক ভাবে।



Recent News

Available at

© 2019 - Maintained by EZEN Software & Technology Pvt. Ltd