বিমানে অসমে আসা ব্যক্তিরা ২৪ ঘন্টায় RTPCR ফলাফল পাবেনঃ ঘোষণা স্বাস্থ্যমন্ত্রী ড০ হিমন্ত বিশ্ব শর্মার

নিউজ ডেস্ক
গুয়াহাটি

Published Time

September 25, 2020, 1:36 pm

Updated Time

September 25, 2020, 1:36 pm
people-arriving-in-assam-by-air-will-get-rtpcr-results-in-24-hours-health-minister-dr-himanta-bishwa-sharma
হিমন্ত বিশ্ব শর্মা। ফাইল ছবি

অসমে অপ্রতিরোধ্য করোনা সংক্রমণ! এর মধ্যেই কোয়ারেন্টাইন নিয়ম নিয়ে রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ড০ হিমন্ত বিশ্ব শর্মা সংবাদ সম্মেলনে গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করেছেন। 

মন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলনে জানানো অনুযায়ী, বিমান বন্দরে যাত্রীদের বেশ কয়েকটি ফর্ম পূরণ করতে হয়, যার ফলে বিমানবন্দরে যথেষ্ট জন সমাগম হয়। সেজন্যে vigitassam.org নামক একটি অ্যাপ আরম্ভ করা হয়েছে। 

বিমান বন্দরে যে ফর্মগুলো পূরণ করতে হয় সেগুলো অনায়াসে এই অ্যাপের মাধ্যমেই পূরণ করা যাবে। অর্থাৎ জনসমাগম বন্ধ করে করোনা সংক্রমণ রোখার জন্যে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে এই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। 

 

উক্ত অ্যাপের মাধ্যমে ফর্ম পূরণ করে বিমান বন্দরে সেই ফর্ম শুধু দেখালেই হবে। 

করোনাকালে জন সমাগম একটা বিরাট ভয়ের বিষয়! মোকাবিলায় বারবারই আহ্বান করা হচ্ছে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে, শতভাগ মাস্ক পরিধান করার জন্যে ! 

 

অন্যদিকে, বিমানে অসমে আসার পর ১০ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইন করার যে প্রক্রিয়া, তা প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ড০ শর্মা সংবাদ সম্মেলনে ঘোষণা করেছেন।  

মন্ত্রী কথানুযায়ী, ‘বিমান বন্দরে অবতরণ করার সঙ্গে সঙ্গে অ্যান্টিজেন টেস্ট এবং আরটিপিসিআর টেস্ট করানো হবে। যদি ২২০০ টাকা যাত্রীরা বহন করেন অর্থাৎ দিতে পারেন তাহলে তাঁদের রেজাল্ট ২৪ ঘন্টার ভিতর দিয়ে দেয়া হবে। রেজাল্ট নেগেটিভ আসার সঙ্গে সঙ্গে ব্যক্তির কোয়ারেন্টাইন শেষ হয়ে যাবে”। অর্থাৎ যে দশ কোয়ারেন্টাইনে থেকে রেজাল্টের জন্যে অপেক্ষা করতে হতো, তা একদিনেই শেষ করা হবে। 

অবশ্য যদি কোন যাত্রী ২২০০ টাকা দিয়ে আরটিপিসিআর টেস্ট করাতে না চান, তাহলে করোনার ফলাফল না আসা পর্যন্ত হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে তাঁকে। বিনামূল্যে করা আরটিপিসিআর পরীক্ষার ফলাফলের জন্যে ব্যক্তিকে ৩-৫ দিন অপেক্ষা করতে হবে।  

তবে এই রেজাল্ট যদি ২ দিনে হয়ে যায় তাহলে ২ দিনেই দিয়ে দেয়া হবে। কিন্তু ফলাফল দিতে ৫ দিনের বেশি লাগবে না। 

তদুপরি, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হয়ে ওঠা যাত্রীকে কোনধরনের টেস্ট করানোর প্রয়োজন নেই। অবশ্য, তাঁদের চিকিৎসালয় থেকে মুক্ত হওয়ার প্রমাণ পত্র বিমানবন্দরে দেখাতে হবে বলে মন্ত্রী জানিয়েছেন।  

রেলের ক্ষেত্রেও একই নিয়ম প্রযোজ্য হবে। 



Recent News

Available at

© 2019 - Maintained by EZEN Software & Technology Pvt. Ltd